Sunday, May 29, 2022
HomeUncategorizedছাত্রজীবন বা স্কুল লাইফের কিছু মনকাড়া উক্তি | Heart Touching quotes on...

ছাত্রজীবন বা স্কুল লাইফের কিছু মনকাড়া উক্তি | Heart Touching quotes on school

ছাত্রজীবন বা স্কুল লাইফের কিছু মনকাড়া উক্তি | Heart Touching quotes on school

আমরা প্রায় সকলেই একমত যে ছাত্রজীবন বা স্কুল লাইফ ই হল জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়। সাংসারিক জটিলতাও জীবনের বাস্তবিক খুঁটিনাটি থেকে চিন্তামুক্ত চিত্ত এই ছাত্রজীবন । স্নিগ্ধ ও স্বচ্ছ বাতাসের মতোই নির্মল এই ছাত্রজীবন । স্কুল লাইফ বা ছাত্রজীবনে কাটানো সময়গুলো তাই প্রায় অধিকাংশ মানুষের কাছেই সবথেকে আনন্দঘন মুহূর্ত।
ছাত্রজীবন বা স্কুল লাইফের কিছু মনকাড়া উক্তি – Heart Touching quotes on school

বন্ধু চল রোদ্দুরে মন কেমন মাঠজুড়ে
খেলবো আজ ওই ঘাসে
তোর টিমে তোর পাশে

একলা খাওয়া টিফিন, স্কুল এর করিডোরে
ছায়ার সাথে লড়াই,তোকে দেখবো কেমন করে।
তোর জন্য খোলা টিফিন বক্স, ভাগ করে খাওয়া টিফিন বক্স
বল বন্ধু হবি, ফের বন্ধু হবো স্টোন পেপার সিজার টিফিন বক্স॥

স্কুলে কি পড়েছি তা নেই মনে ,কিন্তু স্কুলের প্রতিটি দিন এখনো আছে স্মরণে

স্কুলের প্রথম দিনটা আর শেষ দিনটি একই ছিল, চোখে জল ফেলেছিলাম দুই দিন ই
কিন্তু কারণটা ছিল একেবারে আলাদা” একটা যাবার আনন্দ ;আরেকটি বিদায়ের ব্যথা॥

প্রতিদিন ই ছিল আনন্দ আর মজা রাশি রাশি , ওটা স্কুল ছিল না স্বর্গ তা আমি বুঝতে পারিনি।
ছুটির দিনগুলিতে কাটতো না সময় , স্কুলজীবন কে আজও আমি সমান ভালোবাসি

“যদি আবার কখনো ফিরে আসে স্কুলের স্বর্ণালী দিনগুলি,
তাহলে নিশ্চিত যে এবার স্কুলে না যাওয়ার কোনও বাহানা করব না।”
জীবন কীভাবে বদলে গেছে, আগে স্কুলে না যাওয়ার অজুহাত খুঁজতাম
অর এখন স্কুলে যাওয়ার সুযোগও পাই না।”
সেই রাস্তাটি মনে পড়ে এখনো
যেখানে স্কুলটি আমার ছিল,
সেটি জুড়েই ছিল আমার ছোট্ট পৃথিবী,
অর এখন আমি অন্য পৃথিবীর বাসিন্দা ।
টিফিনের সময় ছুটে যাওয়া
দুটাকা দিয়ে হজমি খাওয়া
আসবে কি আর সেদিন ফিরে কখনো?
খুশিমাখানো স্কুলের দিনগুলি
নতুন করে আর পাব না কখনো !
স্যারের বকা ;কানমলা
তাতে ও ছিল সুখ
এখন আর কেউ বকে না
আদর করে ধরে না চিবুক!
দিনগুলি আর সোনার
খাঁচায় রইল না–
আমার স্কুল জীবনের নানা রঙের
দিনগুলি।
ছোট্ট সে ছেলেবেলা
হাসিখুশি আর খেলা
স্কুলজীবনের দিনগুলি আজ
মনে পড়ে সারা বেলা

বাড়ছে বয়স দেহের,তবে হৃদয় আজ ও শিশু তাই এখনও স্কুলের দিনগুলির মধ্যে, পুরানো স্মৃতিগুলির পাতায় মন নিজেকে আবিষ্কার করতে চায়

স্কুলের পরীক্ষাই অনেক ভালো ছিল ; জীবনের পরীক্ষায় তো পেন ছোঁয়ানো ই যায় না 

জীবনে হাজার হাজার বন্ধু এল আর গেল
কিন্তু স্কুল লাইফের বন্ধুরা সেই একই রয়ে গেল!
খেলতে খেলতে লড়াই
আবার খেলতে খেলতেই বন্ধুত্ব
স্কুল লাইফের এ এক
অনন্য বিশেষত্ব !
কত শত বন্ধু আর কতরকম দুষ্টমি ,
কত আড্ডা,কত গল্প ,
টেবিল বাজিয়ে গেয়েছি কত গান
লাস্ট বেঞ্চে বই খুলে মেরেছি কত আড্ডা
ফাঁকিবাজীর মাঝে ও ছিল নিরব অভিমান ।।
স্কুল লাইফ মানে
পরিবারের বাইরে আরেকটি পরিবার,
কিছু মনের মতন বন্ধুর সমাহার
ঝগড়া ও মন খারাপের শেষে
গলা জড়িয়ে ধরে কাঁদা বারংবার!
স্কুল লাইফ মানে অসংখ্য স্মৃতির একটি গল্প
স্কুল লাইফ মানে – একঘেয়ে স্কুল ইউনিফর্ম; সকালের কড়া রোদে এসেম্বলি তে দাঁড়িয়ে করা প্রেয়ার ,
আর দেরি করে স্কুলে গেলে
টিচারের হাতে বেধড়ক মার!
স্কুল লাইফ মানে প্রিয় সেই ব্যাক বেঞ্চে বসে, টিচারের চোখ বাঁচিয়ে চুপিচুপি আড্ডা ।
স্কুল লাইফ মানে টিফিন টাইমের অপেক্ষা।
সবাই মিলে টিফিন ভাগাভাগি করে খাওয়া
স্কুল লাইফ মানে বন্ধুরা মিলে একসাথে স্কুল পালিয়ে খেলতে যাওয়া।
একটি বই, একটি কলম, একটি শিশু এবং একজন শিক্ষক; বিশ্বকে পরিবর্তন করতে পারে।
বন্ধুদের সাথে গড়ে ওঠা এক একটি স্মৃতি
স্কুল জীবনকে বার বার আমার কাছে ফিরিয়ে নিয়ে আসে।
স্কুলের সে দিনগুলি আমায় যে পিছু ডাকে
স্মৃতিগুলি আমার এ হৃদয়ে
রঙে রঙে ছবি আঁকে ।।

কম বয়সে যতটা সম্ভব শিখুন, কারণ জীবন পরবর্তীকালে ব্যস্ত হয়ে পড়ে।

স্কুল মানেই বই পড়ার ফাঁকে প্রথম প্রেমে পড়া॥
স্কুল পালিয়ে সিনেমা দেখা,
স্কুলের গেটে দাঁড়িয়ে ফুচকা খাওয়া,
স্যার কে দেখে সিগারেট পিছনে করে ফেলা,
প্রথম প্রেম পত্র পাওয়া,
স্কুল মানেই ,’ নস্ট্যালজিয়া’ ॥
স্কুল মানেই , ‘চল আজ থেকে আমরা বন্ধু ‘
স্কুল মানে মন দিয়ে পড়াশোনা
টিচারের বকুনি ,আদর আর ভালোবাসা,
স্কুল মানে বিনা কারণেই খিলখিলিয়ে হাসা।
স্কুল মানেই ক্লাসভর্তি একরাশ স্মৃতি
প্রথম ভালোবাসা আর প্রথম চিঠি
আজও রেখে দিয়েছি সবই যত্ন করে
স্কুল জীবনের প্রথম প্রেম ; ভুলি কেমন করে ?
স্কুল মানেই ছুটির আনন্দে মাতোয়ারা মন
স্কুলের ঘন্টায় আছে যেনএক বিশেষ সম্মোহন
দল বেঁধে ছুটে যাই দিকশূন্যপুরে ,
স্কুলজীবন কে তাই আজ ভীষণ মনে পড়ে।
ক্লাস রুমের জানলা,
ব্ল্যাকবোর্ড,চক,ডাস্টার অার বেঞ্চ,
স্মৃতির পাতায় এখনো উজ্জ্বল
সবটাই একই আছে হয়নি কোনো চেঞ্জ।
১০ টা থেকে ৪ টে গম গম করা ক্লাস রুম।
কোনো ক্লাসে বাংলা , কোনো ক্লাসে ইংরাজি আবার কখন ও পাটিগণিত, বীজগণিতের চাপ
আর ইতিহাস ক্লাসে শুধুই ঘুম ॥
স্কুল শব্দ টা শুনলেই মনের ভেতরে জমে ওঠে স্মৃতির পাহাড়;
কখনো বুকের মধ্যে দলা পাকিয়ে ওঠে একরাশ কান্না
আবার পরক্ষনেই ঘুরপাক খায় আনন্দঘন মুহুর্তরা।
স্কুলজীবনে স্মৃতিগুলো সত্যি ই লাগামছাড়া ।
স্কুলের স্মৃতি আজও অমলিন ,
সবার সাথে ভাগ করে খাওয়া টিফিন
মায়ের চুল বেঁধে দেওয়া, ক্লাস নাইন এ প্রথম পরিপাটি করে শাড়ি পরা,
প্রথম প্রেমে আঘাত পেয়ে প্রথম মা কে জড়িয়ে কাঁদা,
এভাবেই ধীরে ধীরে বড় হয়ে ওঠা
স্কুল লাইফের মোহে আজো পড়ে আছে আমি বাঁধা॥
স্কুল লাইফ আমাদের জীবনের একটি বড় অধ্যায় ।
শিক্ষার হাতেখড়ি এই স্কুল ই যে দেয়।
শুধু ডিগ্রি নয় সুশিক্ষা প্রদান করে বিদ্যালয় ।
মানুষকে একটি কুঁড়ি থেকে ফুলে প্রস্ফুটিত করায় ,
স্কুলের মাহাত্ম্য কী কারো সাথে তুলনা করা যায়?
স্কুলের ঘরগুলো আজও আমায় টানে
আজ বুঝেছি স্কুল লাইফের মানে ।
ক্লাসটিচার এর রাগী চোখ
খেতাম মার বাড়লে নখ
মনে পড়ে সেই টিফিন টাইম
সরস্বতী পুজোর ধুম
একলা দুপুরে মন ভার করে
কাঁদে আজো ক্লাস রুম ।
স্কুল লাইফের শেষদিন ;মৃত্যুহীন,
অশ্র সিক্ত নয়নে জানিয়েছি, ‘বিদায়’
বুকে পাথর চেপে মুখে হাসি রেখে
বলেছি মনে মনে ,
এ দেখাই শেষ দেখা নয়!
জীবনের বোঝা বইতে গিয়ে
আজ বুঝতে পারি
ছোটবেলার সেই স্কুলব্যাগটা
মোটেই ছিল না ভারী!
মনে পড়ে সেই পুরনো দিনের কথা
স্কুলে ফেলে আসা অবুঝ কিছু ব্যথা
মনে পড়ে সেই প্রিয় ক্লাসরুমগুলো
লেখা আছে যেথা অতীতের স্মৃতিগুলো ।
বেঁচে থাক স্কুল লাইফ সবার মননে
বেঁচে থাক বন্ধুত্ব মনের গভীর গহনে
সকলের হৃদয়ে ভালোবাসা থাক অক্ষয়!
স্কুলজীবনের মিষ্টিমধুর স্মৃতিগুলোই
যে বেঁচে থাকার একমাত্র উপায়।

 “জীবন কীভাবে বদলেছে, আগে স্কুলে না যাওয়ার বাহানা খুঁজতাম, এখন স্কুলে যাওয়ার সুযোগও পাই না।”

 “সেই রাস্তাটি এখনও মনে আছে যেখানে স্কুলটি আমার ছিল, সেটি ছিল আমার ছোট্ট পৃথিবী, সব চেয়ে সুন্দর যে আমার স্কুল ছিল।”
“আগে বুঝতে পারতাম না যে স্কুলে দিন কিভাবে কেটে যেত, আর এখন বুঝতে পারিনা যে স্কুলের দিন কিভাবে কেটে গেছে!”

“গরম তো আজগেও আসে, কিন্তু স্কুলের সেই গরমের ছুটি আর ফিরে আসে না।”

“হোমওয়ার্ক না করার ভয় আনন্দে পরিণত হয়ে যেত, যখন জানতাম যে আজ কোনও বন্ধুই হোমওয়ার্ক করেনি।”

“সেই স্কুলের দরজাটা লোহার গেট ছিল না জন্নতের দরজা, কি জানি?”

“আমি প্রতিদিন স্কুলে দেরিতে পৌঁছতাম, যদি জানতাম যে স্কুলের দিনগুলি এতো তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাবে, তাহলে রোজ সময়ের আগে পৌঁছে যেতাম।”

“আগে স্কুলে গেলে সকাল, স্কুল থেকে এলে দুপুর এবং খেলতে গেলে বিকেল দেখতে পেতাম, কিন্তু এখন চোখ খুললে সকাল আর অফিস থেকে ফিরলে সোজা রাত দেখতে পাই।”

“কোনও ব্যক্তির শিক্ষার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিনটি স্কুলের প্রথম দিন, স্নাতকোত্তর দিনও নয়।”

“কোনও ব্যক্তির শিক্ষার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিনটি স্কুলের প্রথম দিন, স্নাতকোত্তর দিনও নয়।”

“আগে স্কুলের সময় বিশ্রাম ছিল, তাই আমরা ছুটির দিনগুলিতে ছুটে বেড়াতাম, আজ ছুটির অর্থ কেবল বিশ্রাম অবধি সীমিত হয়ে রয়েছে।”

“বাল্যকালের কারণে স্কুলটি খারাপ বলে মনে হতো, যদি বুদ্ধি থাকতো তাহলে ছুটির দিনেও স্কুলে যেতাম।” 

“মনে পরে সেই স্কুলের বন্ধুরা, মনে পরে যারা আমার সাথে খেতেও সবসময় তৈরী থাকতো।”

“স্কুল থেকে দূর হয়ে গেলেও হৃদয় থেকে স্কুল দূর হয় নি।

“হাই স্কুল হল আপনি কে তা সন্ধান করা, কারণ, এটি অন্য কেউ হওয়ার চেষ্টা করার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।” 

“এক সময় ছিল যে স্কুল না যাওয়ার জন্যে মিচি-মিচি সুয়ে পড়তাম, আর আজ এমন এক সময় যে স্কুলের কথা ভাবলেই চোখে জল এসে যায়।”

“গর্বের সাথে মনে আছে সেই দিনগুলি যাতে এক রাতে পরেও পরীক্ষা পাস করেছি।”

“বয়স বেড়েছে, তবে হৃদয়, এখনও স্কুলের দিনের মধ্যে, পুরানো স্মৃতিগুলির পাতায় নিজেকে আবিষ্কার করে।”

“স্কুলের পরীক্ষাই খুব ভালো ছিল, জীবনের পরীক্ষায় প্রশ্ন তো খুবই কঠিন।”

“স্কুলের দিনগুলির মধ্যে সবচেয়ে সেরা দিনগুলি: যখন প্রত্যেকটি ক্লাসের প্রথম দিন ছিল।”

 “স্কুলের বন্ধুত্বে একটি বিশেষ জিনিস রয়েছে, এতে টাকা এত মূল্যবান নয় যত বন্ধত্ব মূল্যবান।”

“যে বন্ধুদের বন্ধুত্ব স্কুলের পরের বহু বছর বেঁচে থাকে, তাদের বন্ধুত্বে কিছু আলাদাই বেপার থাকে।”

“স্কুলের বন্ধুত্বের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্যটি: যে এইখানে মর্যাদা নয় তবে মজা ও হাসি কে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়।”

 “পড়া-লেখার দিকে কম মনোযোগ ছিল, তবে স্কুল আমাকে বন্ধুত্বের আসল অর্থ শিখিয়েছে।”
আগে জীবনটা বেশ হালকা ছিল কিন্তু স্কুল ব্যাগ ভারী ছিল
এখন জীবনটা বেশ জটিল কিন্তু স্কুল ব্যাগটাযে বড়োই মিস করি।
স্কুল লাইফ প্রত্যেকটি মানুষের জীবনে প্রকৃত মানুষ হওয়ার ভিত্তি স্থাপন করে । শিক্ষার সাথে সাথে একটি শিশুর অধ্যবসায় ,নিয়মানুবর্তিতা আবেগ, অনুভূতি সবকিছুই পূর্ণতা পায় স্কুল লাইফ অতিক্রম করে। তাঁই মানুষ জীবনে যতই উন্নতি করুক না , যতই উচ্চপদে আসীন হোক না কেন তাঁর জীবনে স্কুল লাইফের অবদান সর্বদাই সর্বপ্রথম হয়েই থাকবে ।

স্বীকারোক্তিঃ এখানে উপস্থাপিত সকল তথ্যই দক্ষ ও অভিজ্ঞ লোক দ্বারা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা। যেহেতু কোন মানুষই ভুলের ঊর্দ্ধে নয় সেহেতু আমাদেরও কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল থাকতে পারে।সে সকল ভুলের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী এবং একথাও উল্লেখ থাকে যে এখান থেকে প্রাপ্ত কোন ভুল তথ্যের জন আমরা কোনভাবেই দায়ী নই এবং আপনার নিকট দৃশ্যমান ভুলটি আমাদেরকে নিম্নোক্ত মেইল / পেজ -এর মাধ্যমে অবহিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

আরও পড়ুন  কিভাবে আপনার পিসিতে একটি ভাসমান উইন্ডোতে ইউটিউব ভিডিও দেখবেন | How to Watch YouTube videos in a floating window on your PC

ই-মেইলঃ itshafiqul7@gmail.com ধন্যবাদ।

Shafiqul Islam
Shafiqul Islamhttps://www.uipoka.com
মানুষ সব সময়েই ছাত্র, মাস্টার বলে কিছু নেই। এটা যে বুঝবে – সে সব সময়ে সামনে এগিয়ে যাবে
RELATED ARTICLES

Most Popular

Related articles